বিদেশ

হামাস স্বাধীনতাকামী সংগঠন, সন্ত্রাসী নয় : এরদোয়ান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

ফিলিস্তিনি অবরুদ্ধ গাজার শাসকগোষ্ঠী হামাস একটি স্বাধীনতাকামী সংগঠন, কোনো সন্ত্রাসী সংগঠন নয়, বরং তারা ফিলিস্তিনের মানুষ ও ভূখণ্ড রক্ষায় লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান।

বুধবার (২৫ অক্টোবর) তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় ক্ষমতাসীন একে পার্টির সংসদ সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।

এ সময় হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে অবিলম্বে যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানান তিনি। মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি স্থাপনে মুসলিম দেশগুলোকে একত্রে কাজ করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট।

ইসরায়েল-ফিলিস্তিন সংঘাতে ইসরায়েলের পক্ষ নেওয়ায় পশ্চিমা দেশগুলোর সমালোচনা করে এরদোয়ান বলেন, ইসরায়েলের জন্য পশ্চিমাদের চোখের পানি ফেলা প্রতারণার বহিঃপ্রকাশ।

তুরস্ক পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর সদস্য। ন্যাটোভুক্ত অধিকাংশ দেশ হামাসকে সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে আখ্যা দিয়েছে। সম্প্রতি ন্যাটোর অন্যতম সদস্য ইতালির উপপ্রধানমন্ত্রী মাতিও সালভিনি বলেন, তারা (হামাস) সংঘাত প্রশমনে সাহায্য করেনি। এরদোয়ানের মন্তব্যে তার বক্তব্যের সমালোচনা উঠে এসেছে।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হাজার হাজার রকেট হামলা চালায় ফিলিস্তিনির স্বাধীনতাকামী সংগঠন। জবাবে পর দিন থেকে গাজায় ব্যাপক বিমান হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলি বিমান বাহিনী। এতে এখন পর্যন্ত ৬ হাজার ৫০০ এরও বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে ২ হাজার ৭০৪ জনই শিশু। আর আহত হয়েছেন অন্তত ১৭ হাজার ফিলিস্তিনি।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button