সড়কে প্রাণ গেলো-৭

সময়ের চিত্র ডেস্ক:  মুন্সীগঞ্জ,ময়মনসিংহ, জয়পুর হাটে পৃথক পৃথক সড়ক দুঘর্টনায় ৭ জন নিহত হয়েছেন। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে।

মুন্সিগঞ্জ সড়কে প্রাণ গেলো বাবা ও ছেলে নিহত

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি: মুন্সীগঞ্জে ট্রলিচাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা যাত্রী বাবা ও ছেলে নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন মাসহ তিনজন।
সোমবার সকালে উপজেলার টরকি এলাকায় মুন্সীগঞ্জ-বাংলাবাজার সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
নিহতরা হলেন- দাদন সরকার (৩২) ও ছেলে মো. হোসাইন (৪)। তাদের বাড়ি সদর উপজেরার চর আবদুল্লাহ এলাকায়।
সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম জানান, উপজেলার ত্রিপলিয়া এলাকা থেকে অটোরিকশাটি যাত্রী নিয়ে শহরে যাচ্ছিল। পথে বেলা পৌনে ১১টার দিকে উপজেলার টরকি এলাকায় মুন্সীগঞ্জ-বাংলাবাজার আঞ্চলিক সড়কে বিপরীতমুখী একটি ট্রলি ওই অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে বাবা দাদন সরকার ও তার ছেলে মো. হোসাইনের মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হয়েছেন মা কুলসুম বেগমসহ তিনজন।
আহতদের মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে তাদের ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

ময়মনসিংহে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ৩
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি: ময়মনসিংহের তারাকান্দায় ট্রাক ও সিএনজিচালিত অটোরিকশার মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় তিনজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এতে আহত হয়েছেন আরও দুজন।
সোমবার (১৩ নভেম্বর) দুপুরে ময়মনসিংহ-নেত্রকোনা সড়কের কাশিগঞ্জ বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
তারাকান্দা থানার ওসি মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ময়মনসিংহের পাটগুদাম ব্রিজ মোড় থেকে অটোরিকশাটি নেত্রকোনার দিকে যাচ্ছিল। পরে কাশিগঞ্জ বাজারে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে একটি ট্রাক আসলে তার সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুজনের মৃত্যু হয়। পরে আহত তিনজনকে হাসপাতালে নেয়ার পথে আরও একজনের মৃত্যু হয়। আহত বাকি দুজনকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।
তিনি আরও জানান, ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। দুর্ঘটনার পর চালক পালিয়ে গেছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে কাজ করছে। নিহতের মধ্যে দুজন নারী ও একজন পুরুষ। তবে তাদের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

জয়পুরহাটে দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষ, নিহত ২
জয়পুরহাট প্রতিনিধি: জয়পুরহাটে দুই মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুরে সদর উপজেলার দুর্গাদহ বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন- সদর উপজেলার ছাওয়ালপাড়া গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে জনি হোসেন ও নওগাঁর বদলগাছি উপজেলার রসুলপুর গ্রামের আসলাম হোসেনের ছেলে ছামিউল।
সদর থানার অফিসার ইনচার্জ হুমায়ূন কবির জানান, নিহত জনি দুর্গাদহ বাজারে মোটরসাইকেল মেরামত ওয়ার্কশপের কাজ করতেন৷ সোমবার তিনি ভাদসা এলাকা থেকে ওয়ার্কশপের দোকানে আসছিলেন। পথে অপর দিক থেকে আসা ছামিউলের মোটরসাইকেলের সঙ্গে তার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে গুরুত্বর আহত হন জনি ও ছামিউল। এসময় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক জনিকে মৃত ঘোষণা করেন। আর ছামিউলের অবস্থার অবনতি হলে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

এই বিভাগের আরো খবর