স্থানীয়দের সঙ্গে রাবি শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ, আহত ৫০

সেলিম সানোয়ার পলাশ, রাজশাহী : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) বিনোদপুর গেটের সামনে এক শিক্ষার্থীকে মারধরের ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের দফায় দফায় সংঘর্ষ চলছে। এই ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্মরত সাংবাদিকসহ ৫০ জন শিক্ষার্থী আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

শনিবার (১১ মার্চ) সন্ধ্যায় এই সংঘর্ষ শুরু হয়। শেখ খবর পাওয়া পর্যন্ত সংঘর্ষ চলছে। শিক্ষার্থীরা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করছে। অন্য দিকে স্থানীয়রা কয়েক দফা ককটেলের বিস্ফোরণও ঘটান।

আহত শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে এবং গুরুতর আহতদের রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বগুড়া থেকে বাসে করে রাজশাহী আসছিলেন সমাজবিজ্ঞান বিভাগের এক শিক্ষার্থী। সিটে বসাকে কেন্দ্র করে তার সঙ্গে ঝামেলা হয় একজনের। পরে বাস বিনোদপুর বাজারে এলে বাস আটকে ড্রাইভারকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন শিক্ষার্থীরা। এক পর্যায়ে এক দোকানি এসে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বাজে আচরণ করেন। পরে ওই ব্যক্তির সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

পরে শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে স্লোগান দিতে থাকেন। এসময় দোকান ব্যবসায়ীরা শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায়। বাঁশ-লাঠি নিয়ে তারা শিক্ষার্থীদের ধাওয়া করে। শিক্ষার্থীরা বিনোদপুর গেট দিয়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে। এরপর শিক্ষার্থীরা সংঘবদ্ধ হয়ে আবার বিনোদপুর গেটের দিকে লাঠিসোঁটা নিয়ে ব্যবসায়ীদের ধাওয়া করে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে আসেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও তার কয়েকজন অনুসারী। পরে স্থানীয়দের ধাওয়া খেয়ে ঘটনাস্থলে থেকে বাইক রেখে চলে যান তারা। এসময় চারটি বাইক ভাঙচুর করে স্থানীয়রা।

এই ব্যাপারে প্রক্টর অধ্যাপক আসাবুল হক ঢাকা মেইলকে বলেন, আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীকে সাথে নিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার সর্বাত্মক চেষ্টা চলছে।

এই বিভাগের আরো খবর