সিঙ্গাইরে দুই সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলা

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি:
মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে দুই সাংবাদিকদের উপর সন্ত্রাসী হামলা ঘটনা ঘটেছে। গতকাল শনিবার উপজেলার চান্দহরে ইউনিয়নের বাঘুলী বাজারের একটি খাবার হোটেলে এ হামলার ঘটনা ঘটে। সংবাদ প্রকাশের জেরে  একাধিক হত্যা মামলার আসামি আনোয়ার সিকদার(৩৮) নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয়। হামলায় বেসরকারি টেলিভিশন আনন্দ টিভির সাংবাদিক মোশাররফ মোল্লা ও অনলাইন টিভি জেটিভির সাংবাদিক আব্দুল গফুর আহত হয়েছেন। আনোয়ার সিকদার সিঙ্গাইর উপজেলার চান্দহর ইউনিয়নের বাঘুলী গ্রামের সামসুল সিকদারের ছেলে। এ ঘটনায় সাংবাদিক মোশাররফ মোল্লা ৮ জনের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। আনোয়ার সিকদার আলোচিত হাসেম মোল্লা ও জব্বার হত্যা মামলার প্রধান আসামি। মাটি ব্যবসায়ী আনোয়ার সিকদারের নামে তিন ফসলি জমির মাটি কাটার অপরাধে একাধিক মামলা রয়েছে।

অভিযোগ ও খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, গত ১৩ মে (সোমবার) আনোয়ার সিকদারের মা জহুরা খাতুন সিঙ্গাইর উপজেলা প্রেসক্লাবে ছেলে গফুর সিকদার ও আনোয়ার সিকদারের বিরুদ্ধে মারধরের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেন। পরে সিঙ্গাইর থানা পুলিশ তাকে আটক করে বুধবার আদালতে পাঠান। এঘটনায় বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এদিকে আনোয়ার সিকদার গত বৃহস্পতিবার জামিনে আসে। শনিবার সকালে বাঘুলী বাজারে দুই সাংবাদিক নিউজের কাজে গেলে আনোয়ার সিকদার তার ৮ জন সহযোগী নিয়ে তাদের উপর হামলা করে। এসময় দুই সাংবাদিকের কাছ থেকে দুইটি মোবাইল, মাইক্রোফোন ও ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়। পরে শান্তিপুর ফাড়ীর ইনচার্জ মামুন অর রশিদ তাদের ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেন।

সাংবাদিক মোশাররফ মোল্লা বলেন, মায়ের সংবাদ সম্মেলনের নিউজ করায় আনোয়ার সিকদার আমাদের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে হামলা চালায়। পরে স্থানীয় শান্তিপুর পুলিশ ফাঁড়ির সদস্য আমাদের উদ্ধার করেন।

শান্তিপুর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মামুন অর রশিদ বলেন, ফোন পেয়ে বাঘুলীর একটি হোটেল থেকে দুই সাংবাদিককে উদ্ধার করি। বর্তমান পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

সিঙ্গাইর থানার অফিসার ইনচার্জ জিয়ারুল ইসলাম বলেন, এবিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এই বিভাগের আরো খবর