শওকত ওসমান ছিলেন সততার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী 

নিজস্ব প্রতিবেদক: কথাশিল্পী শওকত ওসমানের পুত্র এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেছেন, আমার বাবা শওকত ওসমান ছিলেন সততার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। মানবপ্রেমিক হিসাবে তিনি আজীবন মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন। আমাদের নিজেদের প্রয়োজনেই এ মহান মানুষকে আমাদের স্মরণ করা প্রয়োজন।

রোববার (১৪ মে) বিকালে রাজধানীর বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে বাংলা সাহিত্যের অন্যতম প্রধান কথাশিল্পী শওকত ওসমানের ২৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে কথাশিল্পী শওকত ওসমান স্মৃতি পরিষদ আয়োজিত স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, শওকত ওসমানকে বলা হয় জাতির কথাশিল্পী। তার লেখনীতে ফুটে ওঠেছে প্রতিবাদের ভাষ্য, আধুনিকতা ও সমাজ বাস্তবতা। সমাজের সব জঞ্জাল, অন্যায় ও অনিয়মের বিরুদ্ধে তিনি ছিলেন সোচ্চার। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর যে কয়জন মানুষ চরম প্রতিবাদ করেছেন তিনি ছিলেন তাদের মধ্যে অন্যতম। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে তিনি দেশান্তরী হয়েছেন।

দৈনিক কালবেলা’র প্রধান সম্পাদক বিশিষ্ট সাংবাদিক আবেদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন কথাশিল্পী শওকত ওসমান স্মৃতি পরিষদ এর সাধারণ সম্পাদক ড. দিপু সিদ্দিকী। অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেন ব্যাংক কর্মকর্তা মেরিন নাজনীন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন পিআইবি জার্নালিজম অ্যালামনাই এসোসিয়েশন (পিবজা), সভাপতি প্রার্থী সালেহ আহমদ, সহ-সভাপতি প্রার্থী রাকিব খান, সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী তানিয়া সুলতানা হ্যাপি, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রার্থী কাজী শরীফুল ইসলাম শাকিল, অর্থ সম্পাদক প্রার্থী মরন চাঁদ রায় জয়ন্ত, সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক প্রার্থী সেলিনা আক্তার, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক প্রার্থী শাহেদুল ইসলাম, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত নির্বাহী সদস্য এ আর এম মামুন, আনিছুর রহমান, প্রমূখ।

এই বিভাগের আরো খবর