রাণবীর শক্তিমান হওয়াতে মুকেশের ক্ষোভ

বিনোদন ডেস্ক

নব্বইয়ের দশকের জনপ্রিয় ধারাবাহিক ছিলো ‘শক্তিমান’। তার প্রধান চরিত্র ছিলেন মুকেশ খান্না। এবার সেই নস্ট্যালজিকে এই প্রজন্মের কাছেও পৌঁছে দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছিল সোনি পিকচার্স। পর্দায় আবারো আসতে চলেছে ‘শক্তিমান’। তবে, এবার মূখ্য চরিত্রে দেখা যাবে রাণবীর সিংকে। আর তাতেই নারাজ নব্বইয়ের দশকের ‘শক্তিমান’ খ্যাত মুকেশ খান্না। এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা।

পত্রিকাটি জানিয়েছে, শক্তিমানের চরিত্রে রাণবীর সিংহকে চূড়ান্ত করাতেই নিজের ক্ষোভ উগরে দিলেন মুকেশ। রাণবীরকে নিয়ে তীব্র কটাক্ষ করলেন তিনি।

মুকেশের কথায়, “মাসখানেক ধরেই সমাজমাধ্যমে একটা গুঞ্জন শোন যায়, রাণবীর সিংহ নাকি শক্তিমান হচ্ছেন। এই খবর প্রকাশ্যে আসার পর অনেকেই রাগ প্রকাশ করেছিলেন। আমি কিন্তু চুপ করে ছিলাম। এখন শুনছি, রাণবীর ইতিমধ্যেই সইসাবুদ সেরে ফেলেছেন, ফলে মুখ খুলতে বাধ্য হলাম। আমি স্পষ্ট বলেছি যে, এ রকম ভাবমূর্তির ব্যক্তি যত বড় স্টারই হোন না কেন, শক্তিমান হতে পারবেন না।’’

মুকেশের রাণবীরকে নিয়ে প্রধান আপত্তির জায়গা বছরখানেক আগে অভিনেতার করা একটি ফটোশুটকে ঘিরে। যেখানে নগ্ন হতে হয় রাণবীরকে। সেই রেশ টেনেই মুকেশ বলেন, ‘‘এগুলো তো ভারতীয় সংস্কৃতিতে নেই। ও যদি নগ্নতায় স্বাচ্ছন্দ হয়, তা হলে অন্যকোনও দেশে চলে যাক। যেখানে পর্দায় প্রতি তিন সেকেন্ডে নগ্ন হতে হয়।

প্রযোজকদের বলেছি, স্পাইডার ম্যান, ব্যাটম্যানদের সঙ্গে কিন্তু শক্তিমানের কোনও প্রতিযোগিতা নেই। কারণ, শক্তিমান শুধু সুপারহিরো নয়, একজন শিক্ষকও। তাই যে অভিনেতাই এই চরিত্রে অভিনয় করুন না কেন, তার সেই গুণটা থাকা বাঞ্ছনীয়। যিনি কথা বললে পাঁচটা লোক শুনবে।”

জানা যায়, সিনেমাটি পরিচালনা করবেন বাসিল জোসেফ। সিনেমাটির বাজেট প্রায় ৩০০ কোটির কাছাকাছি। এরইমধ্যে শেষ হয়ে গেছে চিত্রনাট্য লেখার কাজ। এখন কেবল অপেক্ষা শুটিং শুরুর।

এই বিভাগের আরো খবর