রাজধানীতে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে হতাহত দুই ভাই

নিজস্ব প্রতিবেদক :
রাজধানীর উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরে ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে হতাহত হয়েছেন দুই ভাই। এর মধ্যে বড় ভাই দেলোয়ার হোসেন (২৭) নিহত হয়েছেন এবং তার ছোট ভাই আনোয়ার হোসেন (২৫) আহত হয়েছেন ।

বুধবার সকালে উত্তরার পশ্চিম থানার পরিদর্শক (অপারেশন) পার্থ প্রতিম ব্রহ্মচারী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। এর আগে মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরের বিএনএস সেন্টারের সামনে মেইন রোডে এ ঘটনা ঘটে। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান দেলোয়ার। আর আহত আনোয়ারকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে বাসায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

নিহত দেলোয়ারের বড় বোন আলেয়া বেগম জানান, তাদের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলায়। দেলোয়ার দক্ষিণ খান এলাকায় থাকতেন এবং একটি বাড়ির কেয়ারটেকারের দায়িত্বে কর্মরত ছিলেন। আর আনোয়ার থাকেন ডেমরা সারুলিয়া দক্ষিণ টেংরা লালশাহ মাজারের পাশে একটি বাসায়। মঙ্গলবার রাতে বাবা আলাউদ্দিন এবং মা হামিরুন্নেসাকে পিকআপ ভ্যানে করে বাসার মালামালসহ তারা দুই ভাই গ্রামের বাড়িতে পৌঁছে দিতে যাচ্ছিলেন। মালামালসহ রওনা হন রাত ২টার দিকে। এরপর ভোর ৪টার দিকে তার কাছে খবর আসে, ছিনতাইকারীর ছুরিকাঘাতে আহত হয়েছেন তারা। তাদেরকে ঢাকা মেডিকেল নেয়া হয়েছে। পরে ঢাকা মেডিকেলে গিয়ে আনোয়ারকে আহত অবস্থায় দেখতে পাই। এরপর জানতে পারি, দেলোয়ার ঘটনাস্থলে মারা গেছেন। তার মরদেহ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

আলেয়া বেগম আরও জানান, ছিনতাইকারীরা তাদের গতিরোধ করে প্রথমে টাকা এবং মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নিয়ে চলে যাচ্ছিল। তখন তারা দুই ভাই ছিনতাইকারীদের পেছন ধাওয়া দিয়ে আটকের চেষ্টা করে। এতে ছিনতাইকারীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের দুজনকে এলোপাতাড়ি আঘাত করে চলে যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উত্তরা পশ্চিম থানার পরিদর্শক (অপারেশন) পার্থ প্রতিম ব্রহ্মচারী জানান, এ ঘটনায় একজন নিহত হয়েছে। তার লাশ সোহরাওয়ার্দী মর্গে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া একজন আহত হয়েছেন। ঘটনার বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে। ছিনতাইকারদের ধরতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

এই বিভাগের আরো খবর