Home বিনোদন ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি

ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছেন চিত্রনায়িকা পরীমনি

45
0
SHARE
বিনোদন প্রতিবেদক।।
আগামী ৩০ দিনের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে নিজের অশ্লীল ছবি ও ভিডিও সরানোর জন্য ঢালিউডের আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনিকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।
সোমবার যৌথভাবে তার ঠিকানায় নোটিশটি পাঠালেও ঐ দিন রাত পর্যন্ত পরীমনি তা হাতে পাননি। তবে গণমাধ্যমে নোটিশের বিস্তারিত তিনি দেখেছেন।
পরীমনি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, নোটিশ হাতে পেলে বেশ কয়েকটি পক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।
ওই নোটিশে লেখা হয়েছে, ৩০ দিনের মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত পরীমনির সব ধরনের অশ্লীল ছবি ও ভিডিও অপসারণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি ভবিষ্যতে অশ্লীল সংলাপ, অভিনয়, অঙ্গভঙ্গি, নগ্ন বা অর্ধনগ্ন নৃত্য যা চলচ্চিত্র, ভিডিও চিত্র, অডিও ভিজ্যুয়াল, স্থিরচিত্র, গ্রাফিকস বা অন্য কোনো উপায়ে ধারণ করা ও প্রদর্শনযোগ্য এবং যার কোনো শৈল্পিক বা শিক্ষাগত মূল্য নেই, এসব করা থেকে সম্পূর্ণরূপে বিরত থাকার জন্য লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়েছে।
প্রতিক্রিয়ায় পরীমনি বলেন, আমার পেজে সরানোর মতো কোনো ভিডিও নেই। কেউ যদি ভিডিও দেখিয়ে বলতে পারেন, আমি সরাব। ফাইভ স্টার হোটেলে আমি যে অনুষ্ঠান করেছি, সেখানকার কোনো ভিডিও বা স্টিল ছবি আমি ফেসবুক ছেড়েছি? আমার অনুমতি ছাড়া বাইরে থেকে এগুলো ছাড়া হয়েছে। কোথায় কে কোন ভিডিও দেখল, সেই ভিডিও আমার ঘাড়ে চাপাতে পারেন না।
এ চিত্রনায়িকা বলেন, আমার ফেসবুকে কোথাও কি কোনো অশ্লীল ছবি আছে? যেসব ছবির ইঙ্গিত করে নোটিশ দিয়ে আমাকে সেগুলো সরাতে বলা হয়েছে, সেসব ছবি আমি আপ করেছি? আমার আপ করা এমন একটি ছবিও কেউ দেখাতে পারবেন? এর আগে হাতে সিগারেটসহ দুটি ছবি আদালত থেকে সরাতে বলা হয়েছিল, এক ঘণ্টার মধ্যে সরিয়েছি।
ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়ে পরীমনি বলেন, সবাই আমার পেছনে লাগে কেন রে ভাই? জন্মদিনের অনুষ্ঠানের পর আমাকে অপমান করে যে ভিডিওগুলো বানানো হলো, অনুষ্ঠানের গান বাদ দিয়ে অশ্লীল গানজুড়ে ভিডিওগুলো ভাইরাল করা হয়েছে। এখন খেলা জমে যাবে। আমি উল্টো ওদের নামে অভিযোগ করব। আমার ব্যক্তিগত ভিডিও নিয়ে যারা অশ্লীল গানজুড়ে ভাইরাল করেছে, তাদের বিরুদ্ধে আমি ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছি।
তিনি আরো বলেন, আমি এখন ওই দুই উকিলের নামে নোটিশ পাঠাব। আমাকে তারা ডিস্টার্ব করেছেন, আমার কাজের হ্যাম্পার করেছেন। আমি এখন তাদের কাছে ক্ষতিপূরণ চাইব। আমার মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষতি করেছেন, যার ক্ষতিপূরণ তাদের অবশ্যই দিতে হবে। এ নোটিশের খবর দেখে আমি ট্রমায় চলে গেছি। আগামী দুই মাস তো কাজই করতে পারব না।
image_print