বোরহানউদ্দিনে অটোরিক্সায় সিগারেট টানতে বাধাঁ দেয়ায় শিক্ষকের উপর হামলা

বোরহানউদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধিঃ

অটোরিক্সায় সিগারেট টানতে বাধাঁ দেয়ায় মিনার মাহমুদ নামের একজন শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনাটি ১১ জুলাই, মঙ্গলবার দুপুর ২টায় বোরহানউদ্দিন উপজেলার টবগী রাস্তার মাথা সংলগ্ন এলাকায় ঘটেছে।

বোরহানউদ্দিন উপজেলার প্রাথমিক শিক্ষক নেতা মাহবুবুর রহমান জানান, মিনার মাহমুদ পূর্ব মুলাইপত্তন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। সে কয়েকদিন যাবৎ জ্বরে ভুগতেছিলেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে স্যার প্রধান শিক্ষকের অনুমতি সাপেক্ষে অসুস্থ শরীরে অটোযোগে বাড়ি ফিরেতে ছিলেন। পথিমধ্যে আবুল বাজার থেকে আব্বাস মাল নামের একজন ব্যক্তি ওই অটোরিক্সায় উঠে। সে অটোতে বসে সিগারেট টানছিলেন। মিনার মাহমুদ স্যার তার শরীর খারাপ জানিয়ে তাকে সিগারেট টানতে বারন করেছিলেন। এতে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে অটোরিক্সাটি থামিয়ে আরো কয়েক জনকে ডেকে এনে টবগী হাসান আলী মাল বাড়ীর দরজায় স্যারকে অটো থেকে টেনে হিঁচড়ে নামিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ এবং শারিরীকভাবে আঘাত করে তার শরীরের বিভিন্ন অংশে জখম করে ও তার জামাকাপড় ছিঁড়ে ফেলেন হামলাকারীরা। পরে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা দেয়া হয়। রাতে থানায় গিয়ে ওসি মহোদয়কে বিস্তারিত জানালাম। উনি স্যারের জখমগুলি দেখলেন এবং আমাদের কাছ থেকে অভিযোগ গ্রহন করে তাৎক্ষণিক ডিউটি অফিসারকে কঠিন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করতে বললেন।

তিনি আরও জানান, আমরা প্রাথমিক শিক্ষক পরিবার এ ন্যাক্কারজনক হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং দোষীদের কঠিন শাস্তির দাবী করছি। এদিকে জানা গেছে আব্বাস উদ্দিন উপজেলার আবুল বাজারে চায়ের দোকানদার এবং টবগী ৩নং ওয়ার্ডের হাসন আলী মাল বাড়ী।

এব্যাপারে আব্বাস উদ্দিন কে না পেয়ে ওই বাড়ীর সাবেক মেম্বার হারুন এর সাথে আলাপকালে তিনি জানান, অটোরিক্সার পিছনে বসে আব্বাস সিগারেট টানছিল আর শিক্ষক বসা ছিল সামনে। ওই শিক্ষক বাধাঁ দিলে ওনাকে বলছে আমার বাড়ী সামনে আমি নেমে যাবো। এরপরও উনি রাগ হওয়ায় উভয়ের মধ্যে বাকবিতন্ড ও হাতাহাতি হয়।

বোরহানউদ্দিন থানার অফিসার (ইন-চার্জ) ওসি মোঃ মনির হোসেন মিয়া জানান, শিক্ষকের উপর হামলার ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরো খবর