বরিশালে বীরমুক্তিযোদ্ধার বসতবাড়ি দখলের পাঁয়তারা

প্রতিবাদে রাইট টক বাংলাদেশের সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার :

বরিশালে বীর মুক্তিযোদ্ধা মৃত আলহাজ্ব আব্দুল মন্নান খান বাদশার বসতবাড়ি দখলে নেয়ার ষড়যন্ত্র এবং পরিবারকে হত্যার হুমকি ও মিথ্যা দায়েরের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে রাইট টক বাংলাদেশ ও ভুক্তভোগী পরিবার।

বুধবার (২৭ মার্চ) সকালে রাজধানীতে রাইট টক বাংলাদেশ এর অফিসে এই সংবাদ সম্মেলন করেন সংগঠনটির প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার আল আমিন এম তাওহীদ।

সংবাদ সম্মেলন রাইট টক বাংলাদেশ এর প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি বলেন,বরিশাল সিটি করপোরেশনের রুপাতলী খালেদাবাদ কলোনীর ১৩ নং ওয়ার্ডের চিহ্নিত সন্ত্রাসী একাধিক মামলার আসামি ছালাম কসাই, ইমরান হোসেন ও রকি বায়েজিদসহ কিছু অসাধু লোকজন বিভিন্ন সময়ে বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত আলহাজ্ব আব্দুল মন্নান খানের বসতবাড়ি দখলে নেয়ার চেষ্টা করছে এবং মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করে হয়রানির পাশাপাশি হত্যার হুমকি দিচ্ছে সন্ত্রাসীরা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও স্থানীয় প্রশাসনের এব্যাপারে সহযোগীতা কামনা করে তিনি বলেন,

বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত আলহাজ্ব আব্দুল মন্নান খান বাদশা। আপনারা জেনে অবাক হবেন যে,এই বীরমুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে হত্যার হুমকিসহ তার বসতবাড়ি দখল করার ষড়যন্ত্র মরিয়া উঠছে একটি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী। একই সঙ্গে বীরমুক্তিযোদ্ধার বৃদ্ধ স্ত্রী ও সন্তানকে জড়িয়ে মিথ্যা-বানোয়াট ও ভিত্তিহীন মামলা করে হয়রানি করছে। বরিশাল সিটি কর্পোরেশনের ২৪ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ রুপাতলী গ্রামের বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত আলহাজ্ব আব্দুল মন্নান খান বাদশা জীবদ্দশায় তারই বসতবাড়ীর সম্মুখে নিজস্ব সম্পত্তিতে বাড়ির সামনে একটি গেট নির্মাণ করেন। ওই গেটটি দীর্ঘদিন অযত্নে পড়ে থাকে। বর্তমানে নির্মিত গেটটি সংস্কার করা হয়।

এলাকার কিছু চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী ছালাম কসাই ও তাঁর দুই পুত্র ইমরান হোসেন রকি ও মোঃ বায়েজিদসহ অনেকে বাড়ির গেটের বীরমুক্তিযোদ্ধার নাম ফলক গেইটটি ভেঙ্গে ফেলার হুমকি প্রদান করে আসছে। যেখানে মহান মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের নামে বিভিন্ন সড়ক ও স্থাপনা নামকরণে ও সংরক্ষণের জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ আছে।

বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত আলহাজ্ব আব্দুল মন্নান খানের বসত বাড়ির পূর্ব পার্শ্বে ছালাম কসাই,বীরমুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে এসে তার ছেলে মুক্তিযোদ্ধা যুব কমান্ডের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহ আল নাঈম রয়েলকে হত্যার হুমকি দিয়ে যায় । এ ঘটনায় বীরমুক্তিযোদ্ধা মৃত আলহাজ্ব আব্দুল মন্নান খানের স্ত্রী নিরাপত্তা চেয়ে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

বীরমুক্তিযোদ্ধার বাড়ির পিছনে ছালাম কসাইয়ের ৮২ শতাংশ একখানা জমি রয়েছে যা বাণিজ্যিকভাবে প্লট আকারে বিক্রি করার উদ্দেশ্যে স্থানীয় ভূমি দস্যুদের নিয়ে তাদের লাভবানের লোভ দেখিয়ে সাথে নেয় এবং বীরমুক্তিযোদ্ধার বাড়ির ওপর দিয়ে রাস্তা বের করলে তার জমির দাম তিনগুণ হয়ে যাবে এবং উভয়েই আর্থিকভাবে লাভবান হবে । এসব সন্ত্রাসীরা ইতিপূর্বে অস্ত্র ও ইয়াবা বিক্রির দায়ে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হয়। এছাড়াও ব্যাংক ডাকাতি একাধিক মামলার আসামি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা আবু জাফর,মুক্তিযোদ্ধা যুব কমান্ড কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি জাফর ইকবাল নান্টু,বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র পরিষদের সভাপতি আব্দুর রশিদ মন্ডল রানা এবং রাইট টক বাংলাদেশ এর সদস্যরা।

 

এই বিভাগের আরো খবর