পদ্মায় ফেরিডুবির ঘটনায় ২০ জনকে জীবিত উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার:
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ৯টি যানবাহন নিয়ে রজনীগন্ধা ফেরিডুবির ঘটনায় ২০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত একজনের নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

বুধবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল সোয়া ৮টার দিকে ফেরিটি ডুবে যাওয়ার পর সাড়ে ৮টার সময়ে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি স্টেশন উদ্ধার কার্যক্রম শুরু করে।

বিআইডব্লিউটিসি’র আরিচা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপমহাব্যবস্থাপক শাহ মো. খালেদ নেওয়াজ জানান, ঘন কুয়াশার কারণে বলগেটের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ৫ নম্বর ঘাট এলাকার কাছাকাছি ফেরি রজনীগন্ধা ডুবে গেছে।

এদিকে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা কার্যালয়ের বাণিজ্য শাখার ব্যবস্থাপক মো. সালাম হোসেন জানান, ফেরি ডুবির ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি, ২০ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত ফেরির চালকের সহকারী নিখোঁজ রয়েছে বলে তিনি জানান।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস জানায়, ঘন কুয়াশার কারণে মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) দিনগত রাত ২টা থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া, আরিচা-কাজীরহাট ও ধাওয়াপাড়া-নাজিরগঞ্জ নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। যা বুধবার সকালেও চালু হয়নি। এমন অবস্থায় পাটুরিরা ৫নং ঘাটের কাছাকাছি অবস্থানে থাকা ফেরি রজনীগন্ধা বাল্কহেডের ধাক্কায় তলা ফেটে পদ্মা নদীতে ডুবে যায়। এসময় ফেরিতে ৯টি যানবাহন ছিল বলে জানা গেছে। উদ্ধারে নৌপুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের সঙ্গে কাজ করেছে স্থানীয়রা।

এই বিভাগের আরো খবর