দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে প্রাণ গেছে দাদী ও নাতনীর

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের পার্বতীপুরে নাতনীকে ট্রেন দেখাতে নিয়ে গিয়ে ট্রেনেই কাটা পড়ে প্রাণ গেছে দাদী ও নাতনীর। শনিবার (১৯ আগস্ট) বেলা ১১টায় পাবতীপুর উপজেলার পুরাতন বাজার এলাকার তিলাই নদীর রেলসেতুর উপর এই দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছেন-দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার রানীরবন্দর মহিলা কলেজ পাড়ার আব্দুল মজিদ বাবুর স্ত্রী মর্জিনা বেগম (৬০) ও তার নাতনী সাথী খাতুন (৭)।

স্থানীয়রা জানান, পার্বতীপুর পৌর এলাকার পুরাতন বাজার এলাকায় বিয়ের অনুষ্ঠানে নাতনীকে নিয়ে যোগ দিতে যান মর্জিনা বেগম। শনিবার সকাল ১১টার দিকে মর্জিনা বেগম তার নাতনীকে বিয়ে বাড়ী থেকে ট্রেন দেখাতে নিয়ে গিয়ে রেল লাইনের উপর দিয়ে হাঁটছিলেন। তাদের সাথে ছিলেন আরও দু’জন। একসময় তারা তিলাই নদীর রেলসেতুর উপর উঠলে দিনাজপুর থেকে ঢাকাগামী দ্রæতযান এক্সপ্রেস নামে একটি আন্তঃনগর ট্রেন তাদের ধাক্কা দেয়। তাদের সাথে অপর দু’জন তিলাই নদীতে ঝাপ দিয়ে প্রাণে বেঁচে গেলেও ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত হন দাদী-নাতনী।

পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার ওসি একেএম নুরুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এই বিভাগের আরো খবর