ত্রিশালে বাসচাপায় ৬ জনের মৃত্যু, চালক আটক

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

ময়মনসিংহের ত্রিশাল উপজেলায় বাসচাপায় ছয়জনের মৃত্যুর ঘটনায় পুলিশ চালককে গ্রেপ্তার করেছে।

ওই বাসচালকের নাম ওবায়দুল্লাহ (২০)। সন্ধ্যা সাতটার দিকে ত্রিশাল উপজেলার বাগান এলাকা থেকে তাঁকে আটক করা হয়।

থানা-পুলিশ জানায়, ওবায়দুল্লাহ ‘রাব্বি-সেতু’ নামের একটি বাস চালাতেন। ধারণা করা হচ্ছে ওই বাসের চাপায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। তিনি ত্রিশাল উপজেলার মো. সুর্য্যত আলীর ছেলে।

ত্রিশাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাইন উদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

বুধবার সকাল সোয়া সাতটার দিকে ত্রিশাল উপজেলার চেলেরঘাট এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে বাসের চাপায় ছয়জন নিহত হন। দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে পাঁচজনের পরিচয় জানা গেছে। তাঁরা হলেন ঈশ্বরগঞ্জের মারুয়াখালি গ্রামের আলতাফ হোসেন (৬৫), ত্রিশালের হদ্দেরভিটা গ্রামের জেসমিন আক্তার (২৬) ও বখতিয়ার হোসেন (৩২), নওপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলাম (৩৪), সদর উপজেলার চুরখাই গ্রামের লিটন মিয়া (২৭)। আরেক নারীর পরিচয় পাওয়া যায়নি।

ত্রিশাল থানার ওসি মাইন উদ্দিন আরও বলেন, শেরপুর থেকে ঢাকাগামী একটি বাস বুধবার সকালে চেলেরঘাট এলাকায় বিকল হয়ে যায়। ওই বাসে পোশাক কারখানার বেশ কয়েকজন শ্রমিক ছিলেন। বিকল হওয়া বাসটি মেরামত করতে সময় লাগবে ভেবে ওই শ্রমিকদের অনেকে অন্য বাসে ওঠার জন্য রাস্তায় দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছিলেন। এ সময় একটি বাস থামলে শ্রমিকেরা তাতে উঠতে যান। পেছন থেকে অপর একটি বাস এসে তাঁদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন এবং পরে তিনজন মারা যান।

 

 

 

 

 

 

 

এই বিভাগের আরো খবর