জীবিত থেকেও এক বৃদ্ধ মৃত, এ দায়কার!

বোরহানউদ্দিন (ভোলা) প্রতিনিধি:

কুতুবা ভূমি অফিসে জমির খাজনার টাকা অনলাইনে জমা দিতে গিয়ে দেখেন ভোটার আইডি কার্ড সাপোর্ট করছে না। তারা উপজেলা নির্বাচন অফিসে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেন। নির্বাচন অফিসে গিয়ে দেখে তার ভোটার আইডি কার্ডে মৃত লেখা। এতে বিস্মিত হয়ে পড়েন বোরহানউদ্দিন পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আবদুল লতিফ মাতাব্বর (৭৮)। তার ভোটার আইডি নং ০৯২২১০৬০৮০৯১৪।

আবদুল লতিফ মাতাব্বর এর বড় ছেলে মো. ফোরকান হোসেন জানান, ভূমি অফিসে খাজনা দিতে গিয়ে দেখি বাবার আইডি কার্ড শো করে না। ভূমি অফিসের কর্মকর্তারা বলেন উপজেলা নির্বাচন অফিসে যোগাযোগ করতে। তাদের সাথে যোগাযোগ করলে আমার বাবার ভোটার আইডি নাম্বার দিলে তাতে আসে সে মৃত। এটা দেখে আমার বৃদ্ধ বাবা বিস্মিত হয়ে পড়েন। পরে নির্বাচন অফিস আমার বাবার হাতের ছাপ নিয়ে আবেদন করেছে। বলছে ঠিক হয়ে যাবে। ভোটার আইডির জন্য বাবা করোনার টিকাও দিতে পারেনি। এদিকে জানাযায় ২০১৭ সালে ভোটার তথ্য হালনাগাদের সময় ৬-১০-২০১৭ ইং তারিখে তাকে মৃত দেখানো হয়েছে। এরপর থেকে প্রায় ৭ বছর যাবত চরম বিরম্ভনায় পড়তে হয়েছে এ বৃদ্ধ কে। আসলে এ দায়কার!

এব্যাপারে ভোটার হালনাগাদকারী, বোরহানগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এর সহকারী শিক্ষক উৎপল দে জানান, ২০১৭ সালে ভোটার হালনাগাদ এর সময় ভুল বশত হয়তোবা এটি হয়েছে। আমি দু:খ প্রকাশ করছি।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. শহিদুল ইসলাম জানান, ২০১৭ সালে ভোটার হালনাগাদে তাকে মৃত দেখানো হয়েছে। তাই ভোটার আইডিটি সাপোর্ট করে না। আমরা তার হাতের ছাপ নিয়ে আবেদন করেছি দ্রæত তার ভোটার আইডি কার্ডটি ঠিক হয়ে যাবে।

এই বিভাগের আরো খবর