জাপার একাংশের সভা স্থগিত, বিতরণ করবে পানি ও খাবার স্যালাইন

নিজস্ব প্রতিবেদক

পূর্বনির্ধারিত আগামীকাল শনিবারের পরিচিত সভা স্থগিত করেছে রওশন এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি। শনিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইনিস্টিউট মিলনায়তনে এ সভা আহবান করেছিলো দলটি। একইদিনে কাকরাইল ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং ইনিস্টিউট দলের বর্ধিত সভা ডেকেছে জিএম কাদেরের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি। এ নিয়ে গত কয়েকদিন দুটি গ্রুপের মাঝে বিরাজ করছিলো উত্তেজনা। এক পর্যায়ে বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের দ্বারস্থও হয়েছেন দুই অংশের নেতারা।

এমন অবস্থায় শুক্রবার দুপুরে বিজয়নগরের একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন করে রওশন এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি।

সংবাদ সম্মেলনে পার্টির নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী ফিরোজ রশিদ বলেন, এই তীব্র তাপদাহে জনগণের পাশে না দাঁড়িয়ে রাজনৈতিক সভাসমাবেশ করা তামাশার সামিল বলে আমরা মনে করি। তাই আগামীকালের পরিচিত সভা স্থগিত করে আজ শুক্রবার থেকে পাঁচ দিনব্যাপী ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণে ১০টি স্থানে তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ জনসাধারণের মাঝে আমরা পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ করবো।

কাজী ফিরোজ রশিদ বলেন, আজ অর্থনৈতিক ও ব্যাংক খাতে বিপর্যয় নেমে এসেছে। বড়বড় ব্যাংকগুলো ছোট ছোট ব্যাংক গিলে খাচ্ছে। বড় বড় কোম্পানিগুলোতে অভ্যন্তরীণ কোন্দল লাগিয়ে তা গিলে খাওয়া হচ্ছে। এসব বিষয়ে আজ সংসদে কথা হচ্ছে না। আগে জাতীয় পার্টিকে বলা হতো গৃহপালিত বিরোধী দল। আর এখন বলা হয় কৃতদাস। এ পার্টির ভবিষ্যৎ অন্ধকার। জাতীয় পার্টির ওপর মানুষের আস্থা নেই। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি এ পার্টিকে কিভাবে গুছিয়ে রাখা যায়।

সংবাদ সম্মেলনে পার্টির মহাসচিব কাজী মামুনুর রশীদ বলেন, রাজনীতি সবসময় করা যাবে। কিন্তু জনদুর্ভোগ এবং কষ্টের সময় রাজনীতি চলে না। জনগণের কল্যাণের জন্য আমরা রাজনীতি করি। তাই তাদের পাশে দাড়ানোই আমাদের প্রথম কাজ। আমরা পাঁচ দিনব্যাপী প্রতিদিন দশটি স্পটে তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ ভ্রাম্যমাণ ও অসহায় রিকশাচালক এবং দিনমজুরদের পানি ও খাবার স্যালাইন বিতরণ করবো।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন পার্টির সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, কো-চেয়ারম্যান সাহিদুর রহমান টেপা, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, গোলাম সারোয়ার মিলন এবং সুনীল শুভ রায়।

 

এই বিভাগের আরো খবর