গাজীপুরে মেয়ের জামাইকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ, আটক ৪

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের পূবাইল সাতানি পাড়া এলাকায় গত রোববার রাতের দিকে শশুর বাড়ীতে বেড়াতে যান রবিউল ইসলাম নামে এক যুবক। এসময় স্বামী-স্ত্রী ঝগড়া বাঁধলে শশুর বাড়ির লোকজন রবিউল কে এলোপাতাড়ি রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে অভিযোগ উঠেছে।

 

শুক্রবার (১০মে) বিকেলে রবিউল ইসলাম (২৮) নামের ওই যুবক নিজ বাড়িতে মারা গেছেন। টঙ্গী এরশাদনগর এলাকার দুই নাম্বার ব্লকের বাসিন্দা তুহিন তালুকদারের ছেলে রবিউল ইসলাম।

 

প্রত্যক্ষের বরাদে জানা যায়, গত রোববার রাত ১২টার দিকে শশুর বাড়িতে বেড়াতে যান রবিউল ইসলাম। এসময় স্বামী-স্ত্রীর সাথে ঝগড়া হলে, ঘটনার এক পর্যায়ে শশুরবাড়ীর লোকজন এসে রড দিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি মারধর করে।

 

পুলিশ সূত্র জানা যায়, প্রায় এক বছর আগে গাজীপুরের পূবাইল থানার সাতানিপাড়া এলাকার কালাম মিয়ার মেয়ে করিমার সঙ্গে বিয়ে হয়। গত রোববার (৫ মে) স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুরবাড়িতে বেড়াতে আসেন রবিউল। ওইদিন রাতেই স্ত্রী করিমার সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হয় রবিউলের। এর একপর্যায়ে শ্বশুরবাড়ির লোকজন মিলে তাকে লোহার রড দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে আহত অবস্থায় রবিউলকে টঙ্গীর শহীদ আহসান উল্লাহ মাষ্টার জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে সেখান থেকে তাঁকে টঙ্গীর এরশাদ নগর এলাকার নিজ বাড়িতে নেওয়া হয়। পরে শুক্রবার বিকেলে নিজ বাড়িতে রবিউলের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পূবাইল থানা-পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে থানায় নেয়।

 

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের (জিএমপি) পূবাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মো. কামরুজ্জামান বলেন, ‘সুরতহাল শেষে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় আইনি পক্রিয়া চলমান রয়েছে।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর