Home খেলার খবর দ্রুততম একশ’ উইকেটের রেকর্ড গড়ে উজ্জীবিত মিরাজ

দ্রুততম একশ’ উইকেটের রেকর্ড গড়ে উজ্জীবিত মিরাজ

39
0
SHARE

স্পোর্টস রিপোর্টার॥ টেস্টে বাংলাদেশের পক্ষে এর আগে মাত্র ৩ বোলার ১০০ উইকেট শিকারের কৃতিত্ব দেখিয়েছিলেন। এবার মোহাম্মদ রফিক, সাকিব আল হাসান ও তাইজুল ইসলামের পর চতুর্থ বাংলাদেশী হিসেবে সেই মাইলফলক ছুঁয়েছেন মেহেদি হাসান মিরাজ। উইন্ডিজের বিপক্ষে চলমান সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে আজ তৃতীয় দিন শাইন মোসলিকে আউট করে এই কীর্তি গড়েন তিনি। তবে আগের ৩ জনই ছিলেন বাঁহাতি স্পিনার, মিরাজ অফস্পিনার। শুধু দেশের প্রথম অফস্পিনার হিসেবেই নয়, দেশের দ্রুততম ও সর্বকনিষ্ঠ বোলার হিসেবে এই অর্জনের মালিক হয়েছেন মিরাজ। আর তাই সংবাদ সম্মেলনে নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে মিরাজ জানালেন আরও ভাল কিছু করতে উজ্জীবিত তিনি।

২২ টেস্টে ৯০ উইকেট নিয়ে সিরিজ শুরু করেন মিরাজ। চট্টগ্রামেই হয়ে যেতে পারতো তার বেশকিছু রেকর্ড। কিন্তু দুই ইনিংসে ৪টি করে ৮ উইকেট নিয়ে আর ১০০ উইকেটের মাইলস্টোন ছোঁয়া হয়নি তার। চলমান মিরপুর টেস্টের প্রথম ইনিংসেও মাত্র ১ উইকেট নিতে পেরেছিলেন। অপেক্ষাটা দীর্ঘ হয়ে যায়। অবশেষে আজ উইন্ডিজের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু হতেই ১০০ পূর্ণ করেন মিরাজ। উইন্ডিজের দ্বিতীয় ইনিংসে তখন মাত্র নবম ওভার, ব্যক্তিগত প্রথম ওভার বোলিংয়ে আসেন তিনি। তৃতীয় বলেই তিনি মোসলিকে দ্বিতীয় স্লিপে দাঁড়ানো মোহাম্মদ মিঠুনকে ক্যাচ দিতে বাধ্য করেন।

এর মাধ্যমেই রফিক, সাকিব ও তাইজুলের পর চতুর্থ বাংলাদেশী হিসেবে ১০০ টেস্ট উইকেট শিকারের কীর্তি দেখান মিরাজ। ক্যারিয়ারের ২৪তম টেস্টের ৪১তম ইনিংসে এই নজির গড়েছেন দেশের প্রথম অফস্পিনার জিসেবে। রফিক, সাকিব ও তাইজুল ছিলেন বাঁহাতি স্পিনার। এই মাইলফলকে আগের তিন জনের চেয়ে দ্রুততম ও সর্বকনিষ্ঠ বাংলাদেশী তিনি। তবে বিশে^র টেস্ট ইতিহাসে চতুর্থ সর্বকনিষ্ঠ মিরাজ।

ম্যাচশেষে তাই সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন মিরাজ। তিনি বরেন,‘এটা আমাকে আরও ভাল করতে অনুপ্রেরণা জোগাবে। আমি চেষ্টা করব, দেশের হয়ে আরও উইকেট নেওয়ার জন্য। যা আমার ক্যারিয়ারের জন্য অনেক ভাল হবে।’ তার আগে ২৫ টেস্টে ১০০ উইকেট নিয়ে দ্রুততম ছিলেন বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল। এরপর আছেন সাকিব (২৮ টেস্ট) ও রফিক (৩৩ টেস্ট)। বাংলাদেশের দ্রুততম হয়ে বিশে^র টেস্ট ইতিহাসে ৪৮তম অবস্থানে মিরাজ সঙ্গী হয়েছেন ল্যান্স গিবস, জেসন গিলেস্পি, পিটার পোলকদের মতো কিংবদন্তিদের। তারা সবাই ক্যারিয়ারের ২৪তম টেস্টে ১০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেন। এই তালিকায় আছেন ভারতের অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজাও।

বয়সের হিসেবেও দেশের বাকি ৩ একশ’ উইকেট পেরোনো বোলারকে পেছনে ফেলেছেন মিরাজ। মাত্র ২৩ বছর ১০৯ দিন বয়সে তার ঝুলিতে জমা হয়েছে ১০০ উইকেট। ২৫ বছর ২৪২ দিনে সাকিব ও ২৭ বছর ২১০ দিনে এই মাইলফলক ছুঁয়ে এগিয়ে ছিলেন তাইজুল। বিশ্বের টেস্ট পরিসংখ্যান ঘাঁটলে অবশ্য এই মাইলফলকে চতুর্থ কনিষ্ঠতম মিরাজ। এই রেকর্ডে তার সামনে আছেন ড্যানিয়েল ভেট্টরি, হরভজন সিং ও সাকলাইন মুশতাক। ২১ বছর ৪৬ দিন বয়সে উইকেটের সেঞ্চুরি পূর্ণ করা ভেট্টরির দখলেই আছে সর্বকনিষ্ঠ ১০০ উইকেট শিকারীর বিশ^ রেকর্ড। অফস্পিনার হিসেবে অবশ্য এক্ষেত্রে হরভজন ও সাকলাইনের পরই তৃতীয় অবস্থানে মিরাজ।

এখন আরও সামনে এগিয়ে যাওয়ার দিকে মনোযোগ মিরাজের। তিনি বলেন,‘ভবিষ্যতের কথাতো কেউ বলতে পারে না। তবে আমার স্বপ্ন ক্যারিয়ারটাকে অনেক দূর নিয়ে যেতে। কত উইকেট থামব, কত রান করব- এটাতো আগে থেকে বলা সম্ভব নয়। লক্ষ্য কখনও নির্ধারণ করলে আমার জন্য চাপ হয়ে যায়। চলছে, চলবে। যতদিন ক্রিকেট খেলবো, ভাল কিছুই হবে ইনশাআল্লাহ।’