খুব শিগগির মূল্যস্থীতি হ্রাস পাবে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: 
খুব শিগগির মূল্যস্থীতি হ্রাস পাবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। শনিবার (১১ নভেম্বর) বিকালে কক্সবাজারের মহেশখালীর টাউনশিপ মাঠে আয়োজিত জনসভায় এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দুঃখের বিষয় হলো, যখন যুদ্ধ বাধল রাশিয়া-ইউক্রেন; স্যাংশন-কাউন্টার স্যাংশন, যার ফলে মুদ্রাস্ফীতি একটু বেড়েছে কিন্তু সেটাও নিয়ন্ত্রণের আমরা চেষ্টা চালিয়েছি, ইনশাল্লাহ খুব শিগগির এই মূল্যস্থীতি হ্রাস পাবে। মানুষ আরও ভালোভাবে চলতে পারবে, থাকতে পারবে।

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হয় উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারে আসলে, নৌকা মার্কায় ভোট পেলে দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হয়। আমরা মানুষের জন্য কাজ করি। আরেকটি দল আছে তারা মানুষের সম্পদ লুট করে খায়। খুন, বোমাবাজি, গ্রেনেড হামলা ও চোরাকারবারি করে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চাই, দেশের মানুষে শান্তিতে থাকুক। সেটাই আমাদের লক্ষ্য। আমরা যখনই ক্ষমতায় আসি, তখনই মানুষের কল্যাণে কাজ করি। কারণ এ দেশের মানুষ উন্নত জীবন পাবে, কেউ ক্ষুধার জ্বালায় কষ্ট পাবে না। প্রত্যেকটা মানুষ সুন্দরভাবে বাঁচবে। সেই লক্ষ্য নিয়েই আমাদের কাজ।

‘আজকে যখন পণ্য মূল্য বেড়ে গেছে, আমরা উপকরণভোগী কার্ড দিচ্ছি। ভিজিএফ, ভিজিডির মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা দিচ্ছি। যখন সমুদ্রে মাছ ধরা নিষিদ্ধ থাকে, আমাদের জেলেদের কার্ড দিয়েছি এবং আমরা তাদের খাদ্য সহযোগিতা দিয়ে থাকি এবং বিকল্প কাজের ব্যবস্থা করে দিয়ে থাকি। যাতে মানুষ কষ্ট না পায়, সেদিকে লক্ষ্য রেখেই আমরা কাজ করি,’ বলেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি বলেন, কোনো মানুষের মধ্যে যদি মনুষত্ববোধ থাকে তাহলে জীবন্ত মানুষকে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারতে পারে না। বিভিন্ন জায়গায় জীবন্ত মানুষগুলোকে ওই বিএনপি-জামায়াত পুড়িয়ে পুড়িয়ে হত্যা করছে। গাড়িঘোড়া পুড়িয়ে দিচ্ছে। মানুষকে পুড়িয়ে মারা, সম্পদ পুড়িয়ে নষ্ট করা এটাই তাদের কাজ।

তিনি বলেন, আমরা উন্নয়ন করি, আমরা সৃষ্টি করি, ওরা ভাঙে, ওরা নস্যাৎ করে। ওরা ধ্বংস করতে জানে, জনগণের কল্যাণ করতে জানে না। কাজেই ওদের থেকে জনগণকে সাবধান থাকতে হবে।

এই বিভাগের আরো খবর