কাকড়া গাড়ির অবাধ চলাচল, ধুলোয় জরাজীর্ণ  রাস্তা 

গাইবান্ধা প্রতিনিধি।। গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের বেহারা পাড়া মোর হতে জুম্মাওয়ালা বাড়ী পর্যন্ত কাঁচা রাস্তার বেহাল দশা করেছে রাস্তাখেকো কাকড়া গাড়ি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বেহারাপাড়া রোড হতে জুম্মা ওয়ালা বাড়ী পর্যন্ত রাস্তাটির অবস্থা ধুলোয় জরাজীর্ণ। পথচারীরা জানান, কাকড়া গাড়ির অবাধ চলাচলের কারণে রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী। ধুলোর কারণে চলাচলে খুবই কষ্টের মধ্যে আসেন এলাকাবাসী।

বুড়ির ভিটায় অবস্থিত দামোদরপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কোলঘেষে স্কুল চলাকালীন সময়ে বাচ্চাদের খেলাধুলাসহ জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় শিক্ষার্থীরা।

বালুখেকু ও অবৈধ মাটি ব্যবসায়ীর অদৃশ্য ক্ষমতার দাপটে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী জানান,প্রাইমারি স্কুলের সামন দিয়ে যেভাবে কাকড়া চলে তা বাচ্চারা কখন যে দূর্ঘটনার কবলে পড়ে বলার অপেক্ষা থাকে না। আমরা প্রশাসনের জরুরি কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

দামোদরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মতিয়ার রহমান বলেন, ধুলোবালিতে বাচ্চাদের খুব সমস্যা হচ্ছে। বহুবার জানালেও কোন প্রতিকার পাচ্ছি না।তাছাড়া বিদ্যালয়ের একদম কাছাকাছি থেকে এ মরনগাড়ির কারণে বাচ্চাদের নিয়ে বিপদের মধ্যে আছি। আমি প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

জানা যায়, পঃ দামোদরপুর এর মন্টু মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম দীর্ঘদিন থেকে এ ব্যবসার সাথে জড়িত। পাশাপাশি ভেকু দিয়ে মাটি কাটার ফলে এলাকার শান্তি বিনষ্ট করছে।

সচেতন মহল বলছেন, কাকড়া গাড়ির অবাধ বিচরণ এলাকার পরিবেশ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করছে। আমরা এর প্রতিকার চাই।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান বলেন, রাস্তাটিতে ইতোমধ্যে ৪০ দিনের কর্মসূচির লোক দিয়ে মাটি কাটা হয়েছে। কাঁকড়া গাড়ির চলাচলের কারণে রাস্তাটি আবার সাবেক অবস্থায়।

এই বিভাগের আরো খবর