এইচএসসি পরীক্ষা ৩০ জুন, পেছানোর খবরটি ভুয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক

২০২৪ সালের উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা আগামী ৩০ জুন শুরু হবে। পরীক্ষা এক মাস পেছানোর যে বিজ্ঞপ্তি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়েছে, সেটি সত্য নয়। ভুয়া বিজ্ঞপ্তিতে কেউ যাতে বিভ্রান্ত না হন সেই বিষয়েও পরামর্শ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

শুক্রবার (৩১ মার্চ) রাতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের।

তিনি বলেন, পূর্বের ঘোষিত রুটিন অনুযায়ী এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষা পেছানোর বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত হয়নি। যে বিজ্ঞপ্তিটি ছড়িয়ে পড়েছে সেটি ফেক ও ভুয়া।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ভুয়া ওই বিজ্ঞপ্তির শিরোনাম ছিল ‘২০২৪ সালের উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা একমাস বিলম্বের নোটিশ’। এতে বলা হয়েছে, আগাম ঘূর্ণিঝড়, বন্যা ও দুই দফা ছাত্রছাত্রীদের দেশব্যাপী আন্দোলোনের ওপর ভিত্তি করে, আগামী ৩০ জুন অনুষ্ঠিতব্য এইচএসসি পরীক্ষা আগামী ৩০ জুলাই বোর্ড কর্তৃক প্রদত্ত শর্ট সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হবে। শিঘ্রই ২০২৪ সালের ৩০ জুলাই অনুষ্ঠিতব্য পরীক্ষার নতুন সময়সূচি প্রকাশিত হবে।

এদিকে, আগামী ৩০ জুন অনুষ্ঠিতব্য এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা পেছানোর দাবিতে পরীক্ষার্থীদের একটি অংশ বেশ কয়েকদিন থেকে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনে করে আসছেন।

এসব শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা পেছানোর ভুয়া এ বিজ্ঞপ্তি দেখে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করতে দেখা গেছে। তবে মন্ত্রণালয় বলছে, পরীক্ষা পেছানো নিয়ে তাদের কোনো সিদ্ধান্ত নেই। নির্ধারিত সময়ে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হব। ভুয়া বিজ্ঞপ্তিতে কেউ যাতে বিভ্রান্ত না হন সেই বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

এই বিভাগের আরো খবর