আয়ারল্যান্ডকে ৭৭ রানে হারাল বাংলাদেশ

ক্রীড়া ডেস্ক: আয়ারল্যান্ডকে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৭৭ রানে হারাল বাংলাদেশ। টাইগারদের দেওয়া ২০৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ১২৫ রানে ৯ উইকেটেই থেমে যায় আইরিশদের ইনিংস। ম্যাচে সাবিকের বিধ্বংসী বোলিংয়ে দিশেহারা হয়ে পড়ে আয়ারল্যান্ডের ব্যাটাররা।

চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে আজ টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় আয়ারল্যান্ড। কিন্তু এরপরই ঝমঝমিয়ে নামে বৃষ্টি। বৃষ্টির কারণে ৩টা ২০ মিনিটে খেলা শুরু হয়। আর ওভার নির্ধারণ করা ১৭ ওভারের।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই দুর্দান্ত ব্যাটিং করে টাইগার ব্যাটাররা। ব্যাটিংয়ে নেমে ঝরো ইনিংস খেলতে থাকে লিটন ও রনি। ৩ ছয় ও ৬ চারের সাহায্যে ১৮ বলে হাফ সেঞ্চুরি করেন লিটন। ফলে ২০০৭ বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২০ বলে মোহাম্মদ আশরাফুলের রেকর্ড ভেঙে ফেলেন তিনি।

১০ম ওভারে বেন হোয়াইটকে তুলে মারতে গিয়ে লংঅন বাউন্ডারিতে ক্যাচ আউট হন রনি। ২৩ বলে ৪৪ রানের ঝোড়ো ইনিংসে ছিল ৩টি চার আর ২টি ছক্কার মার। ফলে দলীয় ১২৪ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

এ দিকে, লিটন ৪০ বলেই পৌঁছে গিয়েছিলেন ৮৩ রানে। সুযোগ ছিল বিধ্বংসী এক সেঞ্চুরির। কিন্তু ১৭ রানের জন্য তিন অংকের ম্যাজিক ফিগারটা ছুঁতে পারলেন না ডানহাতি এই ওপেনার। নিজের ভুলেই ফেরেন সাজঘরে। বেন হোয়াইটের ওয়াইড বল ব্যাটে লাগাতে গিয়ে উইকেটরক্ষকের ক্যাচ হন লিটন। ৪১ বলে ৮৩ রানের ঝোড়ো ইনিংসে হাঁকান ১০টি বাউন্ডারি আর ৩টি ছক্কা।

সাকিব আল হাসান আর তরুণ তাওহিদ হৃদয়ের ২৯ বলে ৬১ রানের জুটি। ইনিংসের এক বল বাকি থাকতে ১৩ বলে ২৪ করে আউট হন হৃদয়। ২৪ বলে ৩ চার আর ২ ছক্কায় ৩৮ রানে অপরাজিত ছিলেন সাকিব। শেষ পর্যন্ত ৩ উিইকেট হারিয়ে ১৭ ওভারে ২০২ রান করে বাংলাদেশ।

জয়ের লক্ষ্যে ২০৩ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ওভারের প্রথম বলেই আইরিশ শিবিরে আঘাত হানে পেসার তাসকিন। এরপর একে একে আঘাত হানতে থাকেন টাইগার বোলার সাকিব আল হাসান। ফলে আইরিশদের কোনো ব্যাটার আর মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেননি ক্রিজে।

নির্ধারিত ১৭ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৫ রানেই থেমে যায় আয়ারল্যান্ড। আইরিশদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫০ রান করেন কেমফার।

বাংলাদেশের পক্ষে ৪ ওভার বল করে ২২ রান সাকিব একাই শিকার করেন ৫ উইকেট। এ ছাড়া তাসকিন ৩টি ও হাসান মাহমুদ তুলে নিয়েছেন ১টি উইকেট।

 

 

এই বিভাগের আরো খবর