আমি সাংবাদিকদের নিয়ন্ত্রণের পক্ষে নই: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বৃহস্পতিবার (২৩ মে) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি কর্তৃক আয়োজিত ‘মিট দ্য রিপোটার্স’ শীর্ষক মুক্ত আলোচনার প্রশ্নোত্তর পর্বে উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রতি এ কথা বলেন তিনি।

তাজুল ইসলাম বলেন, সাংবাদিকেরা বিভিন্ন উৎস থেকে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করে বিভিন্ন মাধ্যমে সেটা বিতরণ করেন। তাতে করে আমরা যারা দায়িত্বে আছি, তারা সতর্ক হওয়ার একটা সুযোগ পাই। সাংবাদিকদের নিয়ন্ত্রণ করার আমি পক্ষপাতী নই।

রাষ্ট্র পরিচালনায় সাংবাদিকদের অপরিহার্যতা সম্পর্কে উল্লেখ করতে গিয়ে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্র পরিচালনায় যেমন রাজনীতিবিদদের প্রয়োজন আছে, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, আমলার প্রয়োজন আছে, ঠিক তেমনি সাংবাদিকদেরও প্রয়োজন আছে। ভুল, ত্রুটি এবং বিচ্যুতি পরিহার করে, আমি সাংবাদিকতার উন্মুক্ত ব্যবহারকে স্বাগত জানাই।

দেশের ডেঙ্গু পরিস্থিতি বিষয়ক প্রশ্নোত্তরে মন্ত্রী বলেন, আমরা ২০১৯ সাল থেকে মূলত ডেঙ্গুর তীব্রতা ও এর প্রভাব প্রত্যক্ষ করছি। শুধু আমরা নই, সিঙ্গাপুর, মালেশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, শ্রীলঙ্কা ও ভারতও অনেক আগে থেকে এই পরিস্থিতি মোকাবিলা করছে। আমরা যেহেতু পরে আক্রান্ত হয়েছি, কাজেই আমাদের সুযোগ ছিল এসব দেশের কাছ থেকে তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করার। আমরা সেটা করেছি। এমন পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে তারা যা করেছে, সব পদ্ধতি আমলে নিয়ে আমরা কর্মপরিকল্পনা সাজিয়েছি।

এ ছাড়া ইতোমধ্যে আমি আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো থেকেও তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ করেছি। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় যেমন সিঙ্গাপুর ইউনিভার্সিটি, মিয়ামি ইউনিভার্সিটি, অস্ট্রেলিয়ার মোনাস ইউনিভার্সিটির সঙ্গে ভার্চুয়ালি সভাও করেছি। মোটকথা, ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে একটি বিস্তৃত প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি সৈয়দ শুকুর আলী শুভ, সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন প্রমুখ।

এই বিভাগের আরো খবর