আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদলকে যে বার্তা দিল চীন

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চীনে সফর করা আওয়ামী লীগ নেতাদেরকে দেশটির ইন্টারন্যাশনাল ডিপার্টমেন্ট অব চীনা কমিউনিস্ট পার্টির (আইডিসিপিসি/সিপিসি) মন্ত্রী লিউ চিয়েন ছাউ জানিয়েছেন, বাংলাদেশের দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সাংবিধানিকভাবে বেশির ভাগ রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ চান তারা।

শুক্রবার (১০ নভেম্বর) চীনের ইউনান প্রদেশের রাজধানী কুনমিংয়ে চীন সফরকারী আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদলের সঙ্গে লিউ চিয়েন ছাউয়ের নেতৃত্বাধীন সিপিসি প্রতিনিধিদলের বৈঠক হয়।

লিউ চিয়েন জানান, উন্নয়ন এবং আঞ্চলিক স্থিতিশীলতার বৃহত্তর স্বার্থে চীনও সংবিধানকে সমুন্নত রেখে বাংলাদেশে একটি সুন্দর নির্বাচন আশা করে। যাতে বেশির ভাগ রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণের সুযোগ থাকবে। তা ছাড়া নির্বাচনটি সুষ্ঠু এবং শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হবে।

চীনের উপমন্ত্রী ছুন হাই ইয়েন এবং ইউনান প্রদেশের গভর্নর ওয়াং ইউ পোর সঙ্গেও আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদলের বৈঠক হয়। সেখানে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

চীনা উপমন্ত্রী বলেছেন, রাখাইনে রোহিঙ্গাদের দ্রুত, নিরাপদ, টেকসই এবং স্বেচ্ছা প্রত্যাবাসন নিশ্চিতকরণে চীন বাংলাদেশ ও মিয়ানমারের মধ্যকার ধারাবাহিক আলোচনাকে অব্যাহতভাবে উৎসাহিত করে চলেছে।

সফর খুবই ফলপ্রসূ হয়েছে বলে জানান মুহাম্মদ ফারুক খান বলেন, আমি বলেছি আমাদের দেশের যতগুলো কর্মকাণ্ড হয়েছে তার প্রায় সবই কানেকটিভিটির। রাস্তা, রেলওয়ে, বন্দর এ ধরনের প্রোগ্রাম হয়েছে। এতে আমাদের তৃণমূলের বেশি মানুষ সুবিধা পাচ্ছে। আমরা বিআরআইয়ে আছি এবং ভবিষ্যতেও থাকার আশা করি।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মুহাম্মদ ফারুক খানের নেতৃত্বে দলটির আন্তর্জাতিক উপকমিটির সদস্য খালেদ মাসুদ আহমেদ, তরুণ কান্তি দাস ও সুমন কুণ্ডু উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, চীনের বেল্ট অ্যান্ড রোড ইনিশিয়েটিভ-বিআরআই সম্মেলন উপলক্ষে চীনা কমিউনিস্ট পার্টি আওয়ামী লীগের প্রতিনিধিদলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল।

 

এই বিভাগের আরো খবর